السلام عليكم

যে ব্যক্তি নিয়মিত ইস্তেগফার (তওবা) করবে আল্লাহ তাকে সব বিপদ থেকে উত্তরণের পথ বের করে দেবেন, সব দুশ্চিন্তা মিটিয়ে দেবেন এবং অকল্পনীয় উৎস থেকে তার রিজিকের ব্যবস্থা করে দেবেন। [আবূ দাঊদ: ১৫২০; ইবন মাজা: ৩৮১৯]

হেরা পর্বত

| comments (2)





রাসুল (সাঃ) এই হেরা পর্বত এ ধ্যান করতেন। মহা-পবিত্র গ্রন্থ আল কোরআন নাজিল হওয়ার আগে রাসুল (সাঃ) টানা ৪০ দিন এই ৩০০০ ফুট উচু পর্বতে ধ্যান করেছিলেন। চুড়ায় উঠে আরো ৪০ ফুট নিচে নামলে একটি গুহা আছে, সেখানে বসে তিনি ভাবতেন। মক্কায় প্রায় ৬,৫০০ পর্বত রয়েছে; কিন্তু, রাসুল (সাঃ) হেরা কে বেছে নেন কারন -- এই গুহা হতে তাকালে সরাসরি ৪ কিলোমিটার দূরে পবিত্র বায়তুল্লাহ দেখা যায়।
একদিন রাসুল (সাঃ) বসে আছেন, হঠাৎ তিনি অস্থির বোধ করেন। তিনি আকাশের দিকে চাইলেন। দেখলেন-- একজন কেউ বিরাট এক চেয়ারে বসে আছেন; রাসুল (সাঃ) প্রচণ্ড ভয় পেলেন। তিনি ছিলেন-- জিব্রাইল (আঃ)। ধীরে ধীরে তিনি নেমে এলেন। রাসুল (সাঃ) কে বুকে একবার চেপে ধরে বললেনঃ "পড়ুন"। রাসুল (সাঃ) বললেনঃ "আমি তো পড়তে পারিনা। আবারো জিব্রাইল (আঃ) একবার বুকে চেপে দিয়ে বললেনঃ "পড়ুন"। রাসুল (সাঃ) একই উত্তর দিলেন। আবারো জিব্রাইল (আঃ) সজোরে বুকে চেপে ধরে বললেনঃ "পড়ুন"। এবার আল্লাহ-র আদেশে রাসুল (সাঃ) পড়তে শিখলেন। তাঁর উপরে নাজিল হল-- "ইক্করা বিসমি রাব্বি কাল্লাজি খালাক.........।" (পড়, তোমার প্রভূর নামে............)। অবতীর্ণ হল মহাগ্রন্থ আল কোরআন। সুবহানআল্লাহ।



উৎসঃ ‌১
Share this article :

+ comments + 2 comments

December 1, 2012 at 9:02 AM

অসাধারণ তথ্য!পবিত্র 'কুরআন মজীদ' পৃথিবীতে নাজিল হওয়ার এটাই প্রথম সূত্র ব'লে জেনেছিলাম;কিন্তু হেরা পর্বত কেমন তা' কখনও দেখিনি।আজ ছবিতে হেরা পর্বতকে দেখে বিস্ময়সূচক আনন্দ প্রকাশ করলাম!সেই সঙ্গে ব্লগার ভাইকে ধন্যবাদ!!

January 6, 2017 at 11:34 PM

আমিতো পড়তে পারি না........এই কথাটি রাসুল (সা:) বলেননি। রাসুল (সা:) বলেছেন আমি তো পাঠক নয়।

Post a Comment

 
Support : Creating Website | Johny Template | Mas Template
Copyright © 2011. ইসলামী কথা - All Rights Reserved
Template Created by Creating Website Published by Mas Template
Proudly powered by Premium Blogger Template